Connect with us

নির্বাচিত

প্রত্যেকেরই জানা দরকার এমন কয়েকটি কম্পিউটার টিপস ও ট্রিকস

Facebook Profile photo

Published

on

কম্পিউটার ব্যবহারকারীদের অধিকাংশই তাদের কম্পিউটারের দক্ষতা উন্নত করার সর্বশেষ টিপস এবং ট্রিকস জানতে চান। কিছু ব্যবহারকারী আগ্রহ দেখান না কিন্তু এই সাধারণ ট্রিকস প্রত্যেক ব্যবহারকারীর জন্য খুবই সহায়ক। এই কৌশলগুলি আপনার মূল্যবান সময় নষ্ট করবেনা শুধুমাত্র নীচের টিপস ও ট্রিকস অনুসরণ করতে হবে। God Mode: এটি উইন্ডোজ হিডেন ফোল্ডার, গড মোড ফোল্ডার আপনাকে ফোল্ডারের মাধ্যমে একটি কেন্দ্রীভূত নিয়ন্ত্রণ প্যানেল দেয় যেখান থেকে অপারেটিং সিস্টেম সেটিংস এবং VPN সেটিংস, ডেস্কটপ ব্যাকগ্রাউন্ড থেকে সবকিছু অপটিমাইজ করতে পারেন। এই ফোল্ডার তৈরি করতে

  • নতুন একটি ফোল্ডার তৈরি করে রিনেম করতে হবে God Mode.{ED7BA470-8E54-465E-825C-99712043E01C} এটি দিয়ে।
  • স্বয়ংক্রিয়ভাবে ফোল্ডার এর কন্ট্রোল প্যানেল আইকন পরিবর্তন করবে।
  • এখন আপনি আপনার উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম এর যেকোন সেটিংস পরিবর্তন করতে পারবেন।

Problems Step Recorder: সিস্টেম এরর রেকর্ড করার একটি হ্যান্ডি টুল হল স্টেপ রেকর্ডার। কোন সমস্যা হলে কারিগরি সহায়কের সঙ্গে পরামর্শ দরকার হলে প্রবলেম স্টেপ রেকর্ডার আপনার সমস্যার রেকর্ড রাখবে পিসিতে। সাহায্যের জন্য সকল সমস্যার স্ক্রিনশট রাখে এটি। সমস্যা সমাধানের জন্য সাহায্যকারী ব্যক্তির কাছে তথ্য পাঠাতে সাহায্য করবে এটি। প্রবলেম স্টেপ রেকর্ডার ব্যবহার করতে

  • উইন্ডোজ বাটনে ক্লিক করে run টাইপ করুন
  • রান বক্স ওপেন হলে psr টাইপ করতে হবে এবং ok বাটনে ক্লিক করতে হবে।
  • এবার প্রবলেম স্টেপ রেকর্ডার ব্যবহার করতে পারবেন।

সর্বাধিক পরিচিত কি-বোর্ড শর্টকাট: পিসি সহজে চালানোর জন্য ব্যবহারকারীকে বেশী বেশী কি-বোর্ড শর্টকাট জানা দরকার। এখানে প্রত্যেক ব্যবহারকারীর জন্য কিছু আবশ্যক পরিচিত কীবোর্ড শর্টকাট দেয়া হল

  • স্ক্রিনশট নিতে Alt + print screen key শুধুমাত্র একটিভ উইন্ডো ক্লিপবোর্ডে কপি করে।
  • Alt + Tab চলমান প্রোগ্রামকে সার্কেল করে।
  • চলমান কোন প্রোগ্রাম কাজ না করলে Alt + Ctrl + Delete কী প্রোগ্রাম টাস্ক ম্যনেজারের মাধ্যমে বন্ধ করতে সাহায্য করে। সরাসরি টাস্ক ম্যানেজার কাজ করতে চাইলে Ctrl + Shift + Esc।
  • Windows + D সব উইন্ডো মিনিমাইজ করতে ব্যবহার করা হয়।
  • সিস্টেম ইনফরমেশন দেখতে Window + Pause/ Break
  • সেকেন্ড ডিসপ্লে অথবা প্রজেক্টর সেট করতে Windows + P ব্যবহার করতে হবে।
  • ফাইল নেম পরিবর্তন করতে আমরা রাইট ক্লিক করি কিন্তু F2 বাটন চেপে এই কাজ সরাসরি করা যায়।
  • Windows + L অন্য প্রোগ্রামের বিরক্তি থেকে বাঁচতে।

Run Programs On Infected Pc: ভাইরাসের কারণে কোন প্রোগ্রাম চালু না হলে নাম পরিবর্তন করে .exe দিলে চালু করা যাবে। Private Browsing Window: ব্রাউজারে আপনি কোন ওয়েবসাইট ব্রাউজ করছেন তা গোপন করতে চাইলে

  • Ctrl + Shift + N নতুন প্রাইভেট উইন্ডো গুগল ক্রোম ব্রাউজারের জন্য।
  • Ctrl + Shift + P প্রাইভেট উইন্ডো মোজিলা ফায়ারফক্স ব্রাউজারের জন্য।

Continue Reading
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

নির্বাচিত

ভুয়া খবর চেনার ১০ উপায় জানালো ফেসবুক

Facebook Profile photo

Published

on

খবরের কাগজ, টেলিভিশনের পাশাপাশি প্রতিদিনের খবরাখবর সংগ্রহের নতুন মাধ্যম হয়ে উঠেছে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলো। এতে যখন-তখন বিশ্বের যেকোনো প্রান্তে বসে পাওয়া যাচ্ছে দেশ-বিদেশের বিভিন্ন খবর। তবে সমস্যাও আছে। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোতে প্রতিনিয়তই বাড়ছে ভুয়া খবর ও গুজব ছড়ানোর প্রবণতা। এতে বিভ্রান্ত হচ্ছেন পাঠক।

এই বিপত্তি কিছুটা হলেও কমিয়ে আনতে পদক্ষেপ নিয়েছে ফেসবুক। যোগাযোগের মাধ্যমটিতে ভুয়া খবর চেনার ১০ উপায় জানিয়েছে তারা। তারা ওই উপায়গুলো জানিয়ে দ্য টাইমস ও দ্য গার্ডিয়ানের মতো জনপ্রিয় খবরের কাগজগুলোতেও বিজ্ঞাপন দিয়েছে বলে এক প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছে সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

ফেসবুকে ভুয়া খবর চেনার সেই ১০ উপায় কী? চলুন, দেখে নেওয়া যাক একনজরে।

১. খবর পড়ার আগে দেখে নিন শিরোনাম। কারণ, ভুয়া খবরের শিরোনামগুলো অনেক সময় সন্দেহের সৃষ্টি করে।

২. খবর পড়ার আগে দেখে নিতে হবে সেটির ওয়েবসাইট ঠিকানা। অপরিচিত বা সন্দেহজনক কোনো ঠিকানা দেখলে খবরটি ভুয়া হওয়ার আশঙ্কাই বেশি।

৩. খবরটির সূত্র বা সোর্স যদি অপরিচিত হয় অথবা কোনো সূত্র না থাকে, তাহলে ওই খবরে বিশ্বাস না করাই ভালো।

৪. ভুল বানান ও খবরটি সম্পাদনার ধরন দেখে সহজেই চেনা যেতে পারে ভুয়া খবর।

৫. খবরে প্রকাশিত ছবিগুলো কতটুকু সংগতিপূর্ণ, তা বিবেচনায় আনতে হবে। কারণ, ভুয়া খবরে অনেক সময় অপ্রাসঙ্গিক ছবি দেওয়া হয়।

৬. খবরে বর্ণিত ঘটনাটি কখন ঘটেছে, সেটা জানা জরুরি। ভুয়া খবরের প্রয়োজন হয় না সঠিক স্থান-কাল।

৭. সঠিক প্রমাণ ছাড়া খবরের কোনো ভিত্তিই থাকে না। তাই পড়ার আগে দেখে নিন, সঠিক প্রমাণ উপস্থাপন করা হয়েছে কি না।

৮. কোনো খবর দেখে হুট করে বিশ্বাস করার দরকার নেই। দেখে নিন অন্য সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনের সঙ্গে সেটির মিল আছে কি না।

৯. যে খবর পড়ছেন, সেটি কৌতুক নয় তো? বিশ্বাস করার আগে যাচাই করে নিন।

১০. প্রকাশিত খবরটি মজা করে করা হতে পারে। তাই ওই খবরগুলোকে মজা হিসেবেই নিতে হবে। বিশ্বাস করার দরকার নেই।

Continue Reading

অন্যান্য

পবিত্র আল-কোরআন অ্যাপের চতুর্থ সংস্করণের উদ্বোধন

Facebook Profile photo

Published

on

পবিত্র কোরআনের শিক্ষাকে সহজে মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে ২০১৩ সালের জুলাইয়ে  আল-কোরআন (বাংলা) নামের একটি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ তৈরি করেছিল তথ্যপ্রযুক্তিবিষয়ক প্রতিষ্ঠান অরেঞ্জ বিডি লিমিটেড। চার বছরের মাথায় অ্যাপটির চতুর্থ সংস্করণ এনেছে প্রতিষ্ঠানটি।

আজ বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ডিরেক্টর জেনারেল (প্রশাসন) ও অ্যাকসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) প্রকল্পের পরিচালক কবির বিন আনোয়ার এই সংস্করণের উদ্বোধন করেন।

রাজধানীর কারওয়ান বাজারের ৪৬ কাজী নজরুল অ্যাভিনিউতে অরেঞ্জ বিডির কার্যালয়ে চতুর্থ সংস্করণের এই উদ্বোধন অনুষ্ঠানে কবির বিন আনোয়ার বলেন, আসন্ন রমজান মাসে অরেঞ্জ বিডি লিমিটেডের তৈরি পবিত্র আল-কোরআনের এই অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের ইবাদত-বন্দেগিতে নতুন মাত্রা যোগ করবে।

অরেঞ্জ বিডির পক্ষ থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, অ্যাপের নতুন সংস্করণে পবিত্র আল-কোরআনের বাংলা অনুবাদের পাশাপাশি অডিও শোনার সুবিধা সংযোজন করা হয়েছে। এ ছাড়া অ্যাপটির সূচিতে কোরআনের পারা ও আয়াতসংখ্যা পাঠকরা দেখতে পারবেন। অ্যাপটিতে পাঠকরা খুব সহজেই যেকোনো সময় যেকোনো স্থান থেকে পবিত্র আল-কোরআনের সব সুরা পাঠ করা ছাড়াও যতটুকু পড়বেন তা চিহ্নিত করে রেখে পরবর্তী সময়ে আগের স্থান থেকে আরম্ভ করতে পারবেন।

বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, আল-কোরআন (বাংলা) অ্যাপটি শুধু বাংলাদেশেই পাঁচ লক্ষাধিক বারের বেশি ডাউনলোড করা হয়েছে। এ ছাড়া বিশ্বের অন্যান্য দেশ থেকে ১১ লক্ষাধিকের বেশিবার অ্যাপটি ডাউনলোড করা হয়। সম্পূর্ণ বিনা খরচে অ্যাপটি যেকোনো ৪+ অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসে ডাউনলোড করা যাবে।

Al-Quran (Bangla) অ্যাপসটি ডাউনলোড করার লিংক : https://goo.gl/DCDnPi

Continue Reading

অন্যান্য

উইন্ডোজ ১০-এর পর্দা কালো হলে

Facebook Profile photo

Published

on

অনেক সময় উইন্ডোজ ১০ অপারেটিং সিস্টেমে চলা কম্পিউটারের পর্দা হুট করেই কালো হয়ে যায়। এ ছাড়া কম্পিউটার চালু হওয়ার পর লগইন করলেও উইন্ডোজের পর্দা আর দেখা যায় না, কালো হয়েই থাকে। এ রকম হলে মাউসের কার্সর আর কোনো কাজ করে না। এমন সমস্যার সম্মুখীন হলে কিছু কাজ করতে হবে।

লগইন করার পর হলে : উইন্ডোজে পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করার পরই কালো পর্দার এই সমস্যা সৃষ্টি হতে পারে। এমন হলে কম্পিউটারের সঙ্গে লাগানো সব এক্সটার্নাল যন্ত্রাংশ খুলে নিয়ে রিস্টার্ট করুন। যদি পর্দা সচল হয় তবে জানতে পারবেন কোন যন্ত্রের জন্য চালু হচ্ছিল না। এভাবে যন্ত্রাংশ খুলে এবং লাগিয়ে পরীক্ষা নিলে কোন কারণে এমন হচ্ছে তা জানা যাবে। সেই যন্ত্রাংশের জন্য এমন হলে সেটি ব্যবহার থেকে বিরত থাকুন। যন্ত্রাংশ খোলামেলায় যদি সমাধান না আসে তবে কম্পিউটার সেফ মুডে চালাতে হবে। রিস্টার্ট চেপে কিবোর্ডের SHIFT চেপে রাখুন। অনেকগুলো অপশনসহ পর্দা আসবে। সেখানে Safe mode with Networking নির্বাচন করে প্রবেশ করুন। উইন্ডোজের পর্দা অন্য কোনো যন্ত্রের সঙ্গে যুক্ত আছে কি না, সেটি দেখতে Control Panel থেকে Display নির্বাচন করুন। পর্দা উইন্ডোর বাঁ পাশের তালিকা থেকে Project to a Second Display নির্বাচন করুন। একটি সাইড বারে যুক্ত থাকা কম্পিউটার ডিসপ্লেগুলো দেখাবে। এখানে PC Screen Only নির্বাচন করে দিন।

ডিভাইস ম্যানেজার থেকে: কম্পিউটার চালু হলে স্টার্ট মেন্যুতে গিয়ে devmgmt লিখে প্রবেশ করুন। ডিভাইস ম্যানেজার খুললে তালিকার Display Adapters এর ওপর দুবার ক্লিক করে খুলে নিন। Display Adaptor Driver এ ইনস্টল থাকা যন্ত্রে ডান ক্লিক করে Uninstall চাপুন। কম্পিউটার পুনরায় চালু করলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে আবার ডিসপ্লে ড্রাইভার সফটওয়্যার ইনস্টল হয়ে যাবে। এটি কালো পর্দা দূর করার অন্যতম মাধ্যম।

Continue Reading

Trending

সম্পাদক ও প্রকাশক: তাহমিনা আক্তার খান © ২০০৯ - ২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | টেকজুম ডটটিভি, মিডিয়াটিক্স ইনক্ এর একটি উদ্যোগ ১১/এ তল্লাবাগ (গ্রাউন্ড ফ্লোর), সোবহান বাগ, ঢাকা-১২০৭, বাংলাদেশ। মোবাইল: (+88) 01798 07 99 88, (+88) 016 777 00 555 ই-মেইল: news@techzoom.tv